জীবন পরিবর্তন এবং ভবিষ্যৎ গড়ার সহজ সূত্র

ভারতরত্ন পুরস্কার পাওয়া, “ভারতের মিসাইল ম্যান” খ্যাত পরমানু বিজ্ঞানী এপিজে আব্দুল কালাম । তার পুরো নাম আবুল পাকির জয়নুল আবেদিন আব্দুল কালাম । খুব গরীব পরিবারের সন্তান তিনি । ছোটবেলা থেকেই জীবিকার প্রয়োজনে বিভিন্ন পেশায় কাজ করেছেন ।

জীবন পরিবর্তনের সহজ সূত্র

স্কুল ছুটির পর পত্রিকা বিক্রির কাজও করেছিলেন একসময়। তখন কে জানতো, এই গরীব পরিবারের সন্তানটি একদিন হয়ে উঠবেন ভারতের রাষ্ট্রপতি। সাবটাইটেল ব্রো এর এই আরর্টিকেলে আমরা আপনাদের জন্য কিংবদন্তী এপিজে আব্দুল কালামের কিছু অনুপ্রেরণামূলক নির্দেশনার কথা শেয়ার করবো।

তিনি ২০০২ থেকে ২০০৭ সাল পর্যন্ত ভারতের রাষ্ট্রপ্রতির দায়িত্ব পালন করেছেন । পদার্থবিজ্ঞান ও বিমান প্রকৌশলবিদ্যায় পড়াশুনা করে পরবর্তী চল্লিশ বছর ভারতীয় মহাকাশ গবেষণা সংস্থায় বিজ্ঞানী ও বিজ্ঞানের প্রশাসকের দায়িত্বে ছিলেন । কাজের স্বীকৃতি হিসেবে তিনি জয় করে নিয়েছেন অসংখ্য নামীদামী পুরষ্কার।

জীবন পরিবর্তন এবং ভবিষ্যৎ গড়ার সহজ সূত্র

তার বিপুল ও বিচিত্র অভিজ্ঞতাময় জীবন থেকে তিনি রেখে গেছেন অসংখ্য গুরুত্বপূর্ণ কাজ এবং আমাদের জন্য দারুণ অনুপ্রেরণামূলক কথামালা। আপনাদের সামনে তুলে ধরছি এপিযে আব্দুল কালামের কিছু বিখ্যাত উক্তি, যা হয়তো আপনার জীবন পরিবর্তনে কিছুটা হলেও ভূমিকা রাখতে পারবে বলে আমরা বিশ্বাস করি।

ভবিষ্যৎ গড়ার উপায়

১। স্বপ্ন বাস্তবায়ন না হাওয়া পর্যন্ত তোমাকে স্বপ্ন দেখে যেতে হবে। স্বপ্ন সেটা নয়, যেটা তুমি ঘুমিয়ে, ঘুমিয়ে দেখো, স্বপ্ন হল সেটাই – যা পুরনের প্রত্যাশা তোমাকে ঘুমাতে দেয় না।

প্রবল ইচ্ছাশক্তি নিয়ে ছুটতে হবে স্বপ্নের পিছুপিছু এ পি জে আব্দুল কালাম

২। তুমি তোমার ভবিষ্যৎ পরিবর্তন করতে পারবেনা, কিন্তু তোমার অভ্যাস পরিবর্তন করতে পারবে এবং নিশ্চিতভাবে অভ্যাসই তোমার ভবিষ্যৎ পরিবর্তন করে দিবে ।

৩। জীবনে কঠিন বাধাগুলো আসে তোমাকে ধ্বংস করতে নয়, বরং তোমার ভেতরে লুকনো অমিত শক্তি ও সম্ভবনাকে অনুধাবন করাতে, বাঁধাসমুহকে দেখাও তুমিও কম কঠিন নও।

ইন্টারনেটের অন্ধকার জগৎ ডার্ক ওয়েব ও ডিপ ওয়েব

৪। তুমি যদি তোমার কাজকে স্যালুট কর, তাহলে দেখবে তোমার আর কাউকে স্যালুট করতে হবে না । কিন্তু তুমি যদি তোমার কাজকে অসম্মান করো, অমর্যাদা করো, ফাকি দাও, তাহলে তোমাকেই সবাইকে স্যালুট করতে হবে ।

৫। যদি সূর্যের মত দীপ্তিমান হতে চাও, তাহলে – তোমাকেই প্রথমে সূর্যের মতো পুড়তে হবে।

৬। যারা হৃদয় দিয়ে কাজ করতে পারে না, তাদের অর্জন আনন্দহীন। আকর্ষণহীন, এমন সাফল্য থেকেই সৃষ্টি হয় চরম তিক্ততা ।

৭। জীবন ও সময় হচ্ছে পৃথিবীর শ্রেষ্ঠ শিক্ষক।জীবন শেখায় সময়কে সঠিকভাবে ব্যবহার করতে, আর সময় শেখায় জীবনের মূল্য দিতে।

ফেসবুক ও ইউটিউব জগতে বর্তমান সময়ের জনপ্রিয় মূখ সালমান শুখন

৮। ভিন্নরকম চিন্তা ও উদ্ভাবনের সাহস থাকতে হবে। আবিষ্কারের নেশা থাকতে হবে, যে পথে কেউ যায়নি সেই পথেই চলতে হবে, অসম্ভবকে সম্ভব করার সাহস থাকতে হবে এবং সমস্যাকে জয় করেই সফল হতে হবে ।

প্রতিদিন সকালে এই পাঁচটি লাইন বলবেন –

  • আমি সেরা । 
  • আমি করতে পারি ।
  • সৃষ্টিকর্তা সবসময় আমার সঙ্গে আছেন ।
  • আমি জয়ী ।
  • আজকের দিনটা আমার ।

একটা কথা একদম পরিষ্কার এবং চিরন্তন সত্য, আর তা হলো সৃষ্টিকর্তা তাদেরই সহায্য করে থাকেন যারা কঠোর পরিশ্রম করে। তাই অলসতাকে দূর করো এবং পরিশ্রমের সাথে বন্ধুক্ত করো তাহলে দেখবে একদিন তোমরা তোমাদের স্থানে সফল।

Leave a Reply

Your email address will not be published.